1. : admin :
  2. admin@kalernatunsangbad.com : Khairul Islam :
শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ১২:৫৬ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
পাকুন্দিয়ায় দুধ দিয়ে গোসল করে রাজনীতির ইতি টানলেন ছাত্রলীগ নেতা পবিত্র“ঈদ-এ-মিলাদুনবী”জুলুসে র‌্যালী সুষ্ঠুভাবে সম্পন্নে সিএমপি’র নির্দেশনা ব্যবস্থাপনা প্রশিক্ষন কোর্সে ১ম স্থান – ফারজানা হোসেনপুরে নবগঠিত বিতর্কিত উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি বাতিলের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন নন্দীগ্রামে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস পালিত তারাকান্দা ভূমি দস্যূ, মাদক কারবারী, চুরি মামলার চিহ্রিত আসামির বিরুদ্ধে মানববন্ধন বেলাবতে”আড়িয়াল খাঁ যুবরাজ “সংগঠন এর পক্ষ থেকে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে এসি প্রদান বেলাবতে সাংবাদিকদের সাথে নবাগত ইউএনওর মতবিনিময় আশুগঞ্জে ফেন্সিডিল’সহ ৩ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব-১৪ লক্ষ্মীপুরে আদালতের নির্দেশে জামাই পেল নয় টি মহিষ, শ্বশুর পেল আটটি
শিরোনাম
পাকুন্দিয়ায় দুধ দিয়ে গোসল করে রাজনীতির ইতি টানলেন ছাত্রলীগ নেতা পবিত্র“ঈদ-এ-মিলাদুনবী”জুলুসে র‌্যালী সুষ্ঠুভাবে সম্পন্নে সিএমপি’র নির্দেশনা ব্যবস্থাপনা প্রশিক্ষন কোর্সে ১ম স্থান – ফারজানা হোসেনপুরে নবগঠিত বিতর্কিত উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি বাতিলের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন নন্দীগ্রামে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস পালিত তারাকান্দা ভূমি দস্যূ, মাদক কারবারী, চুরি মামলার চিহ্রিত আসামির বিরুদ্ধে মানববন্ধন বেলাবতে”আড়িয়াল খাঁ যুবরাজ “সংগঠন এর পক্ষ থেকে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে এসি প্রদান বেলাবতে সাংবাদিকদের সাথে নবাগত ইউএনওর মতবিনিময় আশুগঞ্জে ফেন্সিডিল’সহ ৩ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব-১৪ লক্ষ্মীপুরে আদালতের নির্দেশে জামাই পেল নয় টি মহিষ, শ্বশুর পেল আটটি

ঈদের আনন্দে শত দুর্ভোগ মাথায় নিয়েও ঢাকা ছাড়ছে মানুষ।

  • প্রকাশ কাল শনিবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২২
  • ১১২ বার পড়েছে

 

দৈনিক তোকদার নিউজ

News

★ নিউজএডিটর:মোঃলিমনতোকদার,তোকদার নিউজ,এর প্রতিবেদক।


পবিত্র ঈদুল ফিতর সামনে রেখে পরিবারের সঙ্গে ঈদ করতে নাড়ির টানে বাড়ি ছুটছে মানুষ।গত কয়েক দিনে ঈদযাত্রায় যাত্রীদের তেমন চাপ না থাকলেও গতকাল ঘরমুখো মানুষের ছিল ঢল।বাস,ট্রেন,লঞ্চ ছাড়াও ব্যক্তিগত পরিবহন এমনকি মোটরসাইকেলেও রাজধানী ছাড়ছে মানুষ।নির্ধারিত আসনের কয়েক গুণ বেশি যাত্রী নিয়ে চলছে রেল।নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ট্রেনের ছাদেও মানুষকে ঢাকা ছাড়তে দেখা গেছে। প্রতিটি বাসেই ঈদ সামনে রেখে আদায় করা হয়েছে বাড়তি ভাড়া।বাড়তি ভাড়ার খড়্গ ছিল লঞ্চেও।সব মিলে অনেকটা ভোগান্তি নিয়েই ঢাকা ছাড়ছে মানুষ।গতকাল সকাল থেকেই রাজধানী থেকে উত্তরবঙ্গমুখী বিভিন্ন সড়কপথে দেখা গেছে যানজট।তবে প্রতিবারের চেয়ে এ যানজট ছিল তুলনামূলক কম।মহাসড়কে সেই অর্থে যানজট দেখা না গেলেও অতিরিক্ত যানবাহনের চাপে কোথাও কোথাও ধীরগতি দেখা যায়। এদিকে গাবতলীতে অনেক কাউন্টারে যাত্রীদের থেকে বাড়তি ভাড়া আদায়ের কারণে পাঁচ কাউন্টারকে জরিমানা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর।

ছবি:দৈনিক তোকদার নিউজ.কমথেকে,রাজধানীর বিমানবন্দর রেলস্টেশন থেকে গতকালের।

গাবতলী আন্তজেলা বাস টার্মিনালে গতকাল দেখা যায়, অন্যান্য বছরের মতো এবার ঈদে যাত্রীর চাপ বেশি ছিল না। বেশির ভাগ পরিবহনের বাসের টিকিট অগ্রিম বিক্রি হয়ে যাওয়ায় কাউন্টার থেকে অল্পসংখ্যক টিকিট বিক্রি হচ্ছে। সেগুলোয়ও বাড়তি ভাড়া আদায় করা হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলছেন যাত্রীর অনেকে।গাবতলী বাস টার্মিনালে শ্যামলী পরিবহনের রংপুরগামী বাসের বেশ কিছু টিকিট কাউন্টার রয়েছে।একটি কাউন্টারের মাস্টার মো:নাসির বলেন,রংপুরের টিকিট আগেই বিক্রি হয়ে গেছে।
তাই যাত্রীর চাপ তুলনামূলক কম।ঈদযাত্রায় আগের বছরগুলোর মতো ভিড় দেখা যায়নি টেকনিক্যাল ও কল্যাণপুরের কাউন্টারগুলোয়ও।সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত এসব এলাকা ঘুরে দেখা গেছে,যাত্রীর চাপ তেমন না থাকায় কাউন্টারে খুব বেশি ব্যস্ততা নেই।কোনো কোনো বাসের কর্মীদের হাঁকডাক দিয়েও যাত্রী খুঁজতে দেখা গেল।ঈদযাত্রা সামনে রেখে গতকাল সকালে গাবতলী বাস টার্মিনাল পরিদর্শনে আসেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।যাত্রী কম থাকলেও গাবতলীতে অনেক কাউন্টারে ভাড়া বেশি নেওয়া হচ্ছিল।পরে যাত্রীদের অভিযোগ শুনে পাঁচ কাউন্টারকে জরিমানা করে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর।অধিদফতরের পরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলেন,গাবতলীর সেলফি পরিবহনকে ১হাজার, শ্যামলী পরিবহনকে ৫০০সাঁথি এন্টারপ্রাইজকে ১হাজার, অরিন ট্রাভেলসকে ১হাজার ও শ্যামনগর পরিবহনকে ৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।তিনি বলেন,যাত্রীদের থেকে অভিযোগ শুনে আমরা বিভিন্ন কাউন্টারে সত্যতা পেয়ে জরিমানা করেছি।ঈদের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে গাজীপুরে ঢাকা-ময়মনসিংহ ও ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যানবাহনে যাত্রীর চাপ বাড়ছে।গতকাল সকালের দিকে সড়কে ঈদে ঘরমুখো যাত্রীর সংখ্যা কম থাকলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে।ঢাকা-টাঙ্গাইল ও ঢাকা-ময়মনসিংহ এ দুই মহাসড়কে অন্যান্য দিনের তুলনায় শুক্রবারের দৃশ্য একেবারেই ভিন্ন রকম ছিল।দুই সড়কেই ব্যাপক চাপ ছিল যানবাহনের।ঢাকা থেকে রংপুরগামী শ্যামলী পরিবহন বাসের চালক আবুল কালাম জানান,বর্তমানে মহাসড়ক চার লেনে উন্নীতকরণের কাজ চলছে। এর পাশাপাশি ঈদ উপলক্ষে চাপ বেড়ে যাওয়ায় যানবাহন একটু ধীরগতিতে চলছে। ঈদের আর মাত্র দুই দিন বাকি থাকলেও ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে সেই চিরচেনা যানজট নেই।তাই অন্য বছরের চেয়ে মানুষ তুলনামূলক স্বস্তিতেই বাড়ি ফিরছে।ঈদযাত্রার যানবাহনের চাপ বাড়ছে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিমসহ সিরাজগঞ্জের সব মহাসড়কেও।বিশেষ করে উত্তরবঙ্গ থেকে ঢাকামুখী লেনে প্রচুর যানবাহন চলাচল করছে।ঢাকা থেকে উত্তরবঙ্গগামী গাড়ির চাপ প্রচণ্ডভাবে বেড়ে যাওয়ায় সিরাজগঞ্জের বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ মহাসড়কের উত্তরবঙ্গগামী লেনে অন্তত ১৫কিলোমিটার এলাকাজুড়ে যানজটের সৃষ্টি হয়েছে গতকাল।তবে পুলিশের তৎপরতায় বেলা ১১টার মধ্যে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে চলে আসে।এর পর থেকে মহাসড়কে যানজট না থাকলেও যানবাহনগুলো চলছে ধীরগতিতে। সিরাজগঞ্জ ট্রাফিক পরিদর্শক সালেকুজ্জামান সালেক বলেন, যানবাহনের সংখ্যা বাড়ার কারণে মহাসড়কে ধীরগতি রয়েছে। মাঝেমধ্যে যানজট সৃষ্টি হলেও সেটা দীর্ঘস্থায়ী নয়। যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রাখতে ট্রাফিক,জেলা,থানা ও হাইওয়ে পুলিশ মহাসড়কে রয়েছে।গতকাল ঈদযাত্রার তৃতীয় দিনে রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে নির্ধারিত শিডিউল অনুযায়ী ছেড়ে গেছে বেশির ভাগ ট্রেন।এ সময় প্রতিটি বগিতে ছিল যাত্রীচাপ।বিনা টিকিটে যাত্রীর সংখ্যা ছিল চোখে পড়ার মতো।কমলাপুর রেলস্টেশন ঘুরে দেখা গেছে,গতকাল সকালে নীলসাগর এক্সপ্রেস ও সুন্দরবন এক্সপ্রেস দেড় ঘণ্টা দেরিতে কমলাপুর রেলস্টেশন ছেড়ে গেছে।যাত্রা বিলম্বের খবর পাওয়া গেছে আরও কয়েকটি ট্রেনের।তবে বেশির ভাগ ট্রেন নির্ধারিত সময়ে ছেড়েছে গতকাল।নীলসাগর ট্রেনের যাত্রী আশিকুর রহমানের সঙ্গে কমলাপুর রেলস্টেশনে কথা হয়। তিনি বলেন,এক রাত স্টেশনে লাইনে দাঁড়িয়ে টিকিট করেছিলাম।সময়মতো ট্রেনেও উঠেছি।কিন্তু উঠে দেখি টিকিট ছাড়াই হাজার হাজার মানুষ আগেই ট্রেনে উঠে রয়েছে।অগত্যা এভাবেই যাত্রা করতে হবে।দেওয়ানগঞ্জগামী তিস্তা এক্সপ্রেসের যাত্রী সুমন হোসেনের সঙ্গেও কথা হয় প্রতিবেদকের।তিনিও অভিযোগ করেন ট্রেনে বাড়তি যাত্রী থাকার।সুমন বলেন,নির্ধারিত সময়ের আগেই স্টেশনে এসে অপেক্ষা করেছি।ভেবেছিলাম ট্রেনের দেরি হবে হয়তো। তবে নির্ধারিত সময়ে ট্রেন ছাড়ছে এটাই বড় স্বস্তির। রেল বিভাগ ঘোষণা দিয়েছিল“টিকিট যার ভ্রমণ তার”কিন্তু ট্রেনে উঠে দেখছি টিকিট ছাড়াই অনেকে ভ্রমণ করছেন।বিনা টিকিটে ভ্রমণকারীদের বিরুদ্ধে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের দৃশ্যমান তেমন কোনো পদক্ষেপ চোখে পড়েনি।কমলাপুর রেলস্টেশনের ভারপ্রাপ্ত ম্যানেজার আমিনুল ইসলাম গতকাল গণমাধ্যমকে বলেন,ঈদ উপলক্ষে বিশেষ ছয় জোড়া ট্রেন চলছে।দিনে ১২২টি ট্রেন ঢাকা স্টেশন ছেড়ে যাবে এবং আসবে।যাত্রাপথ অনেক দূর হওয়ায় যাত্রী ওঠানো-নামানো ও বিরতিতে কিছু সময় অতিরিক্ত ব্যয় হওয়ায় ট্রেন আসতে যেতে দেরি হয়। তবে শিডিউল যেন ঠিক থাকে সে বিষয়ে আমরা কাজ করছি।মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া লঞ্চঘাটেও গতকাল সকাল থেকে ঈদে ঘরমুখো মানুষের চাপ ছিল লক্ষ্য করার মতো। এবারের ঈদযাত্রায় বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে মোটরসাইকেলে ঘরমুখী মানুষের সংখ্যা বেড়েছে।বেড়েছে অন্যান্য যানবাহনের চাপও।কোনো কারণে যানজট হলেও ঘণ্টার পর ঘণ্টা আটকে না থেকে মোটরসাইকেলে গন্তব্যে যাওয়া অনেক সহজ।তাই কিছুটা ঝুঁকি থাকলেও ঈদের ছুটিতে অনেকেই এবার বাড়ি যাচ্ছেন মোটরসাইকেলে।বঙ্গবন্ধু সেতুর টোল প্লাজাসূত্রে জানা যায়,বুধবার রাত ১২টা থেকে বৃহস্পতিবার রাত ১২টা পর্যন্ত ৩৩হাজার ৭৩৪টি যানবাহন সেতু পারাপার হয়েছে। এর মধ্যে মোটরসাইকেল পারাপার হয়েছে ৫হাজার ২২৭টি,যা পারাপার হওয়া মোট যানবাহনের ১৫দশমিক ৪৯।সংশ্লিষ্টরা বলছেন,বৃহস্পতিবার রাত থেকে গতকাল পর্যন্ত আরও বেশি মোটরসাইকেল পারাপার হচ্ছে।মোটরসাইকেলের টোল আদায়ের জন্য পুব প্রান্তে দুটি পৃথক লেন করা হয়েছে। পুরোদমে ঈদযাত্রার কারণে মহাসড়কে যানবাহনের চাপ বাড়লেও গতকাল পর্যন্ত বড় কোনো যানজট দেখা যায়নি। পুলিশসূত্র জানিয়েছেন,যানবাহনের চাপ বেশি হলে এলেঙ্গা থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পর্যন্ত দুই লেনের সাড়ে ১৩কিলোমিটার রাস্তায় একমুখী যান চলাচলের ব্যবস্থা করা হবে।সেখান দিয়ে ঢাকা থেকে উত্তরবঙ্গগামী যানবাহন শুধু চলাচল করবে। অন্যদিকে উত্তরবঙ্গ থেকে সেতু পার হয়ে আসা যানবাহন ভূঞাপুর হয়ে বিকল্প সড়ক দিয়ে এলেঙ্গা পর্যন্ত চলবে। বাংলাদেশ পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি (অপরাধ)নুর ই আলম মিনা গতকাল সকালে মহাসড়ক পরিদর্শনে আসেন।কালিহাতী উপজেলার এলেঙ্গায় সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন,সবার সমন্বিত প্রচেষ্টায় ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে যানজট হয়নি।আশা করা যাচ্ছে অন্য যে কোনো বছরের তুলনায় এবার স্বস্তিতে মানুষ বাড়ি ফিরতে পারবে।মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি জানান,শিমুলিয়া ঘাটে সিরিয়ালের নামে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের পাশাপাশি ফেরি সংকটে যাত্রী ও যানবাহন।তার ওপর স্পিডবোটে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ে নাজেহাল ঈদে ঘরমুখো দক্ষিণবঙ্গের ২১জেলার যাত্রীরা।মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার শিমুলিয়া ঘাটে এমন সব অনিয়মের মধ্যেই ঈদ উদযাপনে বাড়ি ফিরছে লাখ মানুষ।কুমিল্লা প্রতিনিধি জানান,ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লা অংশে ধীরগতিতে চলছে যানবাহন।ধীরগতি থাকলেও সড়কের কোথাও যানজট সৃষ্টি হয়নি।গতকাল সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত চট্টগ্রাম থেকে ঢাকামুখী লেনে মালবাহী ট্রাক, কাভার্ডভ্যান ও লেগুনার চাপ দেখা গেছে।এ ছাড়া ঢাকা থেকে চট্টগ্রামমুখী লেনে বাস,প্রাইভেটকারের চাপ বেশি। যানবাহনের অতিরিক্ত চাপ থাকলেও মহাসড়কের চৌদ্দগ্রাম থেকে দাউদকান্দি পর্যন্ত কোথাও যানজট লাগেনি।রাজবাড়ী প্রতিনিধি জানান,ব্যাটারিচালিত অবৈধ থ্রি-হুইলারে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়সহ দৌলতদিয়া ফেরিঘাট দিয়ে স্বস্তিতেই দেশের বিভিন্ন স্থানে যাচ্ছে মানুষ।গতকাল শুক্রবার বিকালে দৌলতদিয়া ফেরিঘাট এলাকায় দেখা যায়,ফেরিঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের ফেরিপারের অপেক্ষায় নেই যাত্রীবাহী বাস।পণ্যবাহী অপচনশীল ট্রাক পারাপার বন্ধ থাকায় কারণে কোনো ভোগান্তি ছাড়াই পদ্মা পাড়ি দিচ্ছে বাসগুলো।অন্যদিকে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া থেকে ফেরিতে যাত্রীরা দৌলতদিয়া ঘাটে আসছে।ফেরির যাত্রীদের মধ্যে মোটরসাইকেল আরোহী ও ব্যক্তিগত গাড়ির সংখ্যা অপেক্ষাকৃত বেশি।অন্যদিকে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া থেকে বেশিরভাগ লঞ্চগুলোকে অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহন করতে দেখা গেছে।এসব লঞ্চযাত্রীরাই মূলত দৌলতদিয়া প্রান্ত থেকে বাসে অথবা ব্যাটারিচালিত মাহেন্দ্র গাড়িতে করে দেশের বিভিন্ন স্থানে যাচ্ছেন।সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, ঈদে ঘরমুখো যাত্রীদের ভোগান্তি এড়াতে ঢাকা-চট্টগ্রাম এবং ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের নারায়ণগঞ্জ অংশে ৬৭০জন পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সাইনবোর্ড থেকে মেঘনাঘাট টোলপ্লাজা এবং ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের যাত্রামুড়া,তারাব,বরাব,রূপসী,কর্ণগোপ,ভুলতা এলাকা পর্যন্ত বিভিন্ন পয়েন্টে এসব পুলিশ সদস্য দায়িত্ব পালন করছেন। মহাসড়কের এসব অংশ ঘুরে দেখা যায়,গত কয়েকদিনের তুলনায় আজ সড়কে যানবাহনের চাপ একটু বেশি।বিশেষ করে বাস ও প্রাইভেটকার চলাচল করছে বেশি।এ ছাড়া পণ্যবাহী যানবাহনের চাপও লক্ষ্য করা গেছে বেশি।তবে কোথাও যানবাহনের দীর্ঘ সারি লক্ষ করা যায়নি।যানজট এড়াতে সড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে হাইওয়ে পুলিশ সদস্যরা কাজ করে যাচ্ছেন।

শেয়ার করুন

অন্যান্য সংবাদসমূহ

কালের নতুন সংবাদ- Copyright Protected 2022© All rights reserved |
Site Customized By NewsTech.Com

প্রযুক্তি সহায়তায় BTMAXHOST